আপডেট

x


সিলেট থেকে হানিমুন শেষে বাড়ি ফেরা হলো না সাদিয়া-ইমরানের

রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯ | ২:৫৪ অপরাহ্ণ | 356

সিলেট থেকে হানিমুন শেষে বাড়ি ফেরা হলো না সাদিয়া-ইমরানের
বিয়ের ছবি

গেল ৬ আগস্ট নতুন জীবন শুরু করেছিলেন সাদিয়া আক্তার সাথী ও ইমরান হোসেন। বিয়ের রেশ কাটতে না কাটতেই চলে আসে খুশির ঈদ। আনন্দ-উচ্ছ্বাসে ঈদ উদযাপন করেন এই নবদম্পতি। ঈদের পর হানিমুনের জন্য সিলেটে যান তারা। এরপর মধুচন্দ্রিমা শেষ করে সিলেটে মাজার জিয়ারত করে বাড়ি ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় না ফেরার দেশে পাড়ি জমাতে হয় তাদের।

বলছিলাম বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থী সাদিয়া আক্তার ও তার ব্যবসায়ী স্বামী ইমরান হোসেনের কথা। গত শুক্রবার রাত পৌনে ৩টার দিকে নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কারারচর এলাকায় দুর্ঘটনার শিকার হয়ে মারা যান এই যুগল।



ওই রাতে শ্যামলী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নবদম্পতিকে বহনকারী প্রাইভেটকারটিকে চাপা দিলে সাদিয়া-ইমরান দম্পতি ছাড়াও সাদিয়ার দুই বন্ধুও প্রাণ হারান। নববধূ সাদিয়া ও তার দুই বন্ধু জান্নাত রাইসা (২৫) ও বন্ধু আকিবুল হাসান (২৭) বেসরকারি মিলেনিয়াম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নিহত সাদিয়া আক্তার বগুড়ার মোশাররফ হোসেনের মেয়ে। তার স্বামী ইমরান নোয়াখালীর আবু হানিফের ছেলে। তিনি ঢাকায় ডেকোরেটশনের ব্যবসা করতেন।

মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পরদিন শনিবার সকালে জেলা হাসপাতালে ছুটে আসেন নিহতের স্বজনরা।

সাদিয়ার মা রহিমা বেগম বলেন, ‘মাত্র ১০ দিন আগে আমার মেয়ের বিয়ে হয়েছে। হাতের মেহেদির রং এখনও মুছে যায়নি। এর আগেই সড়ক দুর্ঘটনা আমার মেয়ে ও মেয়ের স্বামীকে কেড়ে নিয়েছে। আমি এখন বাঁচবো কী করে? কাদের নিয়ে বাঁচবো?’

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com