মতবিনিময়ে অভিমত কুলাউড়া ৬৫তম জেলা হলে বাড়বে রাজস্ব আয়

রবিবার, ০৩ নভেম্বর ২০১৯ | ১:৪৯ অপরাহ্ণ | 76

মতবিনিময়ে অভিমত কুলাউড়া ৬৫তম জেলা হলে বাড়বে রাজস্ব আয়

বর্তমান সরকার পর্যটন খাতে আয় বাড়াতে চায়। এ নিয়ে চলছে নানামুখী কর্মতৎপরতা। মন্ত্রী-সচিবসহ বিভাগীয় কর্মকর্তা দেশের আনাচে-কানাচে গিয়ে বিশিষ্টজনের মতামত নিচ্ছেন। চলছে মতবিনিময় ও পরামর্শসভা আর নানা পরামর্শ।

এ বিষয়ে সম্প্রতি মৌলভীবাজারে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী, সচিব, পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যানসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া ১০ নং হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল বাছিত বাচ্চু বলেন, পর্যটকদের জন্য যেমন আকর্ষণীয় স্পট দরকার ঠিক তেমনি প্রয়োজন হয় সহজ যোগাযোগব্যবস্থা, মানসম্মত খাবার ও আবাসিকব্যবস্থা, নিরাপত্তা আর গাইডলাইন। আমি মনে করি, হাকালুকি হাওর, মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত, মাধবপুর লেক, লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান, শমসেরনগর বিমানঘাঁটি, অসংখ্য চা-বাগান, আদিবাসী পল্লী, সীমান্ত এলাকা, নদী-নালা সবই দেশের পূর্বাঞ্চলে। তাই সেই এলাকার কুলাউড়া, কমলগঞ্জ, জুড়ি ও বড়লেখা উপজেলা নিয়ে আরো একটি পৃথক জেলা তথা দেশের ৬৫তম জেলা করা যেতে পারে। প্রস্তাবিত জেলার নাম হতে পারে হাকালুকি/মাধবকুণ্ড/মনু অথবা গ্রহণযোগ্য যেকোনো একটি।

তিনি বলেন, নতুন এই জেলা হলে পর্যটকদের যেমন আকর্ষণ বাড়বে আর এ খাতে আয় বাড়বে ঠিক তেমনি অবহেলিত পূর্বাঞ্চলের ব্যাপক উন্নয়ন আর পরিবর্তন হবে। জেলার হেডকোয়ার্টার হবে কুলাউড়া বা এর আশপাশে যেখান থেকে মৌলভীবাজার, কমলগঞ্জ, বড়লেখাসহ পর্যটন স্পটগুলোতে যাওয়া যাবে মাত্র ১ ঘণ্টার মধ্যে। বিজ্ঞপ্তি।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com