প্রবাসীদের বাড়িতে দিনদুপুরে ছদ্মবেশে চুরি করেন তানিয়া

বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩ | ৩:৫৮ অপরাহ্ণ | 102

প্রবাসীদের বাড়িতে দিনদুপুরে ছদ্মবেশে চুরি করেন তানিয়া

একই মহিলা, আলাদা আলাদা দিনে একই কৌশলে বিত্তশালী দুইটি বাড়ি থেকে দারুণ কৌশলে ডাকাতি করেছেন। হাতিয়ে নিয়েছেন বাড়িতে থাকা স্বর্ণালংকার, টাকা, ডলারসহ নানান কিছু। সম্প্রতি সম্মোহিত করে ডাকাতির এ কৌশলের শিকার হয়েছে চট্টগ্রাম ও সিলেটের দুই পরিবার।
গেল ৯ অক্টোবর সিলেটের দ্বিপীকা আবাসিক এলাকার মেজরটিলার একটি বাসায় একজন মহিলা ঢুকে পড়েন। তিনি স্বাভাবিকভাবেই ওই বাসায় প্রবেশ করেন এবং বাসায় থাকা বৃদ্ধ নারীকে পরিচয় দেন আমেরিকায় থাকা ওই নারীর এক ভাইয়ের বউ বলে। পরে পায়ে ধরে সালামও করেন ওই নারী। এরপর থেকেই যেন ওই নারী যা করতে বলছিলেন তাই করছিলেন বাসার গৃহকত্রী।
প্রতারক নারী বৃদ্ধ মহিলাকে অনেকক্ষণ আলাপের বলেন যে, তাঁর কাছে কিছু ডলার আছে যেগুলো তিনি ওই নারীর বাসায় নিরাপদ জায়গায় রাখতে চান। এই বলে বৃদ্ধ মহিলার কাছে বাড়ির মূল্যবান জিনিস কোথায় রাখা হয় জানতে চায়। এদিকে ততোক্ষণে প্রতারক নারীর সম্মহোনের শিকার বৃদ্ধ মহিলা তাঁকে বিশ্বাস করে ফেলেছেন। তিনি ওই মহিলাকে ঘরের লকারের রুমে নিয়ে গিয়ে লকার খুলে দেন। পরে লকার থেকে কায়দা করে স্বর্ণ, টাকা, ডলার লুট করে নেন। সবশেষে, প্রতারক নারী তাঁর স্বামী বাইরে আছেন তাঁকে আনতে যাওয়ার কথা বলে ওই বাসা থেকে কেটে পড়েন। এর কিছুক্ষণ পর বৃদ্ধ মহিলা ঘরের লকার খুলে দেখেন সেখানে সোনাদানা, টাকা পয়সা কিছুই নেই!
এদিন সিলেটের আরো একটি বাসায় এভাবে ডাকাতির খবর জানা গেছে। তাছাড়া, একই মহিলা গেল ১২ সেপ্টেম্বর চট্রগ্রাম শুঘন্ধা আবাসিক এলাকায় একই কৌশলে ডাকা*তি করেছে বলেও খবর পাওয়া গেছে। প্রায় সব জায়গায় গিয়ে একই কৌশল ব্যবহার করে প্রতারক ওই নারী অনেকদিন ধরে ডাকাতি করে আসছে বলে জানিয়েছে পুলিশও।
চট্টগ্রামের সুগন্ধা আবাসিক এলাকার বাসাটির দোতলার একটি বাড়িতে গিয়ে ওই বাড়ির বৃদ্ধ মহিলাকে (হামিদা বেগম) নিজের পরিচয় দেন সামিহা নামে। আমেরিকা প্রবাসী হামিদা বেগমের বান্দবী পরিচয় দেয় সামিহা নামের ভুয়া ওই নারী। পরে সেখানেও সিলেটের মতো একই কায়দায় বৃদ্ধাকে সম্মোহিত করে লকার থেকে টাকাপয়সা নিয়ে গেছে এই প্রতারক।
এদিকে, মৌলভীবাজার শহরের একটি বাসায়ও একই কায়দায় চুরি করেছেন ওই নারী। শহরের টিবি হাসপাতাল সড়কের একটি বাসায় প্রতারক নারী বাসার বৃদ্ধা নারীকে তাঁর লন্ডনে থাকা ছেলের বন্ধুর বউ বলে পরিচয় দিয়ে বাসায় প্রবেশ করে। পরে বৃদ্ধাকে সম্মোহিত করে বাসার একটি লকার থেকে টাকা, গয়না, ডলারসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে চলে যায়।
একইদিন টিবি হাসপাতাল সড়কের বাসায় প্রতারণা করে বের হয়ে শহরের দক্ষিণ কলিমাবাদের একটি বাসায়ও একই ঘটনা ঘটায় ওই প্রতারক নারী। সেখানে বাসার মালিকের ছোট ছেলের জন্য কনে দেখার কথা বলে প্রবেশ করে পরে প্রতারণা করে সবকিছু নিয়ে কেটে পড়ে ওই ছদ্মবেশি নারী।
চট্টগ্রামের ঘটনার পরদিন এ ব্যাপারে পুলিশে অভিযোগ দিলে এই প্রতারক নারীকে নিয়ে তদন্তে নামে পুলিশ। গাজীপুর থেকে ওই নারীর এক ভাগ্নি ও ভাগ্নির জামাইকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে বেরিয়ে এসেছে বেশকিছু তথ্য।
পুলিশ জানায়, সামিহা ভুয়া নামের এই নারীর আসল নাম তানিয়া শিকদার। তাঁর বাড়ি গাজীপুরে। একসময় তানিয়া চলচ্চিত্রে পার্শচরিত্রে অভিনয় করতেন। তাঁর নামে ২০ টির মতো মামলাও রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে এখনো ধরা যায় নি ধুরন্ধর এই নারী আসামীকে।
পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, তারা মূলত একটি চক্র আকারে কাজ করে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো থেকে বিভিন্ন বিত্তশালী প্রবাসীদের নাম, ঠিকানা, নম্বর যোগাযোগ করে পরিকল্পনা করে তারা এই ডাকাতি করে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com