জমে উঠেছে কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির নির্বাচন, পোস্টারে সয়লাব শহর

শনিবার, ১৪ নভেম্বর ২০২০ | ৯:৫৬ অপরাহ্ণ | 181

জমে উঠেছে কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির নির্বাচন, পোস্টারে সয়লাব শহর

ইউসুফ আহমদ ইমন, কুলাউড়া:: ঐতিহ্যবাহী কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির ৬ষ্ঠ নির্বাচনকে ঘিরে সম্ভাব্য প্রার্থীরা প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। ১১ নভেম্বর প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে ভোটারদের মনজয়ে নানা কৌশলে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। তবে এবার মাঠে প্রচারনার পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও ভোটের প্রচারনা করে যাচ্ছেন।পুরোপুরি নির্বাচনী আমেজ বইছে ব্যবসায়ীদের মাঝে।প্রার্থীরা দিনভর ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করছেন। তফশীল অনুযায়ী আগামী ২১ নভেম্বর শনিবার সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা শহরস্থ কুলাউড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

আজ শনিবার (১৫ নভেম্বর) বাজার ঘুরে দেখা যায়, চায়ের দোকান, হোটেল থেকে শুরু করে বাজারের অলিগলিতে চলছে নির্বাচনী আলাপ-আলোচনা। পোস্টারে ছেয়ে গেছে গুরুত্বপূর্ণ মোড় সহ পুরো বাজার। একজন ভোটারের কাছে একাধিকবার গিয়ে ভোট চাচ্ছেন। গত বারের চেয়ে এবার সম্ভাব্য প্রার্থীদের সংখ্যা কম হলেও এবার নির্বাচনী আমেজ অনেকটা তুঙ্গে। বিভিন্ন পদে লড়ছেন মোট ৭৭ জন প্রার্থী।

প্রতীক পেয়েই বেশ জোরেসোরে মাঠে প্রচারনা চালাচ্ছেন প্রার্থীরা। পুরো শহর জুড়ে প্রার্থীরা তাদের প্রতীক ও ছবি সম্বলিত পোস্টার লাগিয়েছেন।মধ্যরাত পর্যন্ত বাজারের সর্বস্তরের ব্যবসায়ীদের কাছে ভোট কামনায় ছুটে যাচ্ছেন ভোটারদের কাছে। দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। সেই সাথে নিজের যোগ্যতা ও অবস্থান জানান দিচ্ছেন বিভিন্ন কৌশলে।কারা আসছে ৩বছরের জন্য কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নতুন নেতৃত্বে। এমন প্রশ্ন ও জল্পনা কল্পনা এখন বাজারের ভোটারদের মনে। ভোটাররা নিঃশ্চুপ হলেও যোগ্য প্রকৃত ব্যবসায়ীদের প্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন। তবে সাধারণ ভোটাররা অংশগ্রহনমূলক সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন চান। কুলাউড়া বাজারে যেনো শান্তিতে ব্যবসা করতে পারেন এমন প্রত্যাশাই প্রার্থীদের কাছে। নির্বাচন পরিচালনা পরিষদের আহবায়ক খন্দকার লুৎফুর রহমান জানিয়েছেন ইতিমধ্যে ভোট গ্রহণের জন্য সকল ধরনের প্রস্তুতিও সম্পন্ন করা হয়েছে।



সভাপতি পদে গরুর গাড়ি প্রতীক নিয়ে প্রচারনা চালাচ্ছেন বিদায়ী কমিটির সভাপতি বদরুজ্জামান সজল ও চেয়ার প্রতীক নিয়ে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ময়নুল ইসলাম শামীম।

আনারস প্রতীক নিয়ে সাধারণ সম্পাদক পদে লড়ছেন কুলাউড়া পৌরসভার কাউন্সিলর ইকবাল আহমদ শামীম, বিদায়ী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক এম. আতিকুর রহমান আখই (মাছ প্রতীক) ও জাসদ নেতা সংগঠক শফিক মিয়া আফিয়ান (আম) প্রতীকে নিয়ে প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন।

এছাড়াও সহ-সভাপতি পদে ৪ জনের মধ্যে হাজী রফিক মিয়া ফাতু (প্রজাপতি) , মাও. আব্দুল ওয়াহিদ (তালা চাবি) , মইনুল হক বকুল (কাপ পিরিচ) ও মদরিছ আলী (খেজুর গাছ) , সব চেয়ে বেশি প্রতিদন্ধী প্রার্থী সহ-সাধারন সম্পাদক পদে ৭ জনের মধ্যে মোঃ আব্দুল জলিল (মটর সাইকেল), সাংবাদিক নাজমুল বারী সোহেল (ঘুড়ি), ফয়েজ উদ্দিন (হাঁস), আলমাছ পারভেজ তালুকদার (উড়োজাহাজ) , শফিকুল ইসলাম জাহেদ (চাকা), শরফ উদ্দিন তমু (বৈদ্যুতিক বাল্ভ) ও আব্দুল মুক্তাদির জাহেদ (টেলিভিশন), কোষাধ্যক্ষ পদে মোঃ বদরুল ইসলাম (ডাব) ও আব্দুস শুকুর (হরিন) , দপ্তর সম্পাদক পদে সাংবাদিক আব্দুল করিম বাচ্চু (হাতি প্রতীক) , মোঃ কুতুব উদ্দিন (চশমা) ও ইকবাল হোসেন সুমন (কলম), প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে ৩ প্রার্থীর মধ্যে মেহেদী হাসান খালিক (গোলাপ ফুল), বিদায়ী কমিটির বর্তমান মেম্বার সাংবাদিক এইচ ডি রুবেল (মোবাইল ফোন) ও আল মামুন তারেক জয় (মাইক), ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে কুলাউড়ার ক্রীড়াঙ্গণের প্রিয় মুখ সংগঠক রবিউল আউয়াল মিন্টু (ব্যাডমিন্টন), ও ফুটবলার খন্দকার সাইফুর রহমান আফজল (ফুটবল), নারী উদ্যোক্তা বিষয়ক সম্পাদক পদে সুফিয়া রহমান ইতি (কলসী), ও গীতা দেব রায় (ফুলদানি) প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।

সমিতির ৮ ওয়ার্ডের সম্পাদক-সদস্য পদের মধ্যে ১নং ওয়ার্ড সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ নজরুল ইসলাম। সদস্য পদে ৬ জনের মধ্যে ওয়েছুর রহমান, লিটন বৈদ্য লিটু, আবু সাঈদ, রিংকু বর্ধন, ইমন মিয়া ও মিনহাজ আহমদ সবুজ, ২ নং ওয়ার্ড সম্পাদক পদে অশোক চন্দ ও মানিক মিয়া শাহজাহান, সদস্য পদে ৪ জনের মধ্যে মারুফ আহমদ জালাল, শেখ মোঃ সুমন, সংগঠক মোঃ শরীফ আহমদ ও নজরুল ইসলাম সোনা,৩নং ওয়ার্ড সম্পাদক পদে ৩ জনের মধ্যে এম হাজির আলী, জনি খান ও আব্দুল মতলিব, সদস্য পদে ৫ জনের মধ্যে কাওছার আহমদ চৌধুরী, শেখ মোঃ আছকর আলী, ফারুক হোসেন, মনির মিয়া ও কামাল আহমদ, ৪ নং ওয়ার্ড সম্পাদক পদে ২ জনের মধ্যে চিনু মিয়া ও গউছ মিয়া, সদস্য পদে ৩ জনের মধ্যে হায়দর আলী, আব্দুল মান্নান ও ইমান উদ্দিন, ৫ নং ওয়ার্ড সম্পাদক পদে ৩ জনের মধ্যে আব্দুল মোহিত, জহির খান ও আব্দুল মান্নান, সদস্য পদে ৩ জনের মধ্যে ইছরাব আলী, এনামুল হক এনাম ও আবুল কালাম রাসেল প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। ৬নং ওয়ার্ড সম্পাদক পদে ৪র্থ বারের মতো আব্দুল্লাহ আল মনি বিনা প্রতিদ্ধন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। সদস্য পদে ৪ জনের মধ্যে জসিম উদ্দিন, জুলহাস মাহমুদ, তাহির আলী ও ইকবাল আহমদ দিপু লড়ছেন। ৭নং ওয়ার্ড সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্ধন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন এজাজ মাহমুদ চৌধুরী ফুল। সদস্য পদে ৫ জনের মধ্যে হুমায়ুন রশীদ রাজন, হাফিজুর রহমান লিটু, শাহাদাত খান, শাহজাহান কবির ও জুনেদ আহমদ, ৮নং ওয়ার্ড সম্পাদক পদে রাজু আহমদ দুলাল ও রাশেদুল ইসলাম, সদস্য পদে ৪ জনের মধ্যে মোঃ সহিদ, মোঃ মস্তফা, নাজিম বখশ ও আবুল মিয়া প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।সমিতির প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ ২০ বছর পর এবারই প্রথম ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা ও পরিচয় পত্র প্রণয়ন করেছে সমিতি। এ বছর ৭ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন পরিচালনা পরিষদের আহবায়কের দায়িত্ব পালন করছেন খন্দকার লুৎফুর রহমান। সদস্য সচিবের দায়িত্বে আছেন প্রভাষক সিপার আহমেদ। সদস্য হিসেবে রয়েছেন হাজী মোঃ চেরাগ আলী, সৌম্য প্রদীপ ভট্টাচার্য সজল, এ এম এস জামান মতিন, সাংবাদিক এম. শাকিল রশীদ চৌধুরী, মোঃ বদরুল ইসলাম বদই।

উল্লেখ্য সমিতি সুত্রে জানা গেছে,  মোট ভোটার সংখ্যা ২ হাজার ৯৭৮। ব্যবসায়ী সমিতির কার্যকরী কমিটির ১১ পদে লড়ছেন ২৮ জন প্রার্থী। এছাড়া ৮টি ওয়ার্ডে একজন ওয়ার্ড সম্পাদক ও দুইজন ওয়ার্ড সদস্য পদে লড়ছেন ৪৯ জন প্রার্থী।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com