আপডেট

x


কুশিয়ারা বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা, আতঙ্কে স্থানীয়রা

শনিবার, ০৩ জুলাই ২০২১ | ৮:২৭ অপরাহ্ণ | 128

কুশিয়ারা বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা, আতঙ্কে স্থানীয়রা

জেলা প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ:: টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে কুশিয়ার নদীর পানি দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। নদীতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে নানা আতঙ্ক-উৎকণ্ঠায় সময় কাটাচ্ছেন নবীগঞ্জ উপজেলার দীঘলবাক, পাহাড়পুরসহ আশপাশের গ্রামবাসীরা। পানি আরও বৃদ্ধি পেলে বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে।

এমন অবস্থায় শুক্রবার (২ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৫টায় নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শেখ মহিউদ্দিন কুশিয়ারা নদীর তীরবর্তী দীঘলবাক ইউনিয়নের দীঘলবাক গ্রাম ও আউশকান্দি ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামের ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধগুলো পরিদর্শন করেন।



জানা যায়, কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টি ও উজানের পাহাড়ি ঢলে নদনদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে নদীর তীরবর্তী বসবাসকারী মানুষের মনে। কুশিয়ারার পানিও ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

খবর পেয়ে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন, দীঘলবাক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ এওলা মিয়া, আউশকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুনসহ জনপ্রতিনিধিরা সরেজমিনে দীঘলবাক ইউনিয়নের দীঘলবাক গ্রাম ও আউশকান্দি ইউনিয়নে পাহাড়পুর গ্রামের কুশিয়ারা নদীর ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধ পরিদর্শন করেন।

দীঘলবাক গ্রামের এলাইছ মিয়া জানান, কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টি দেয়ার ফলে কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আতঙ্কের মধ্যে রয়েছি। নদীর পাড়ের অনেকাংশে ভাঙন দেখা দিয়েছে।

দীঘলবাক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ এওলা মিয়া বলেন, নদীর পানি যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে এই ধারা অব্যাহত থাকলে বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন বলেন, নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। যদি ক্রমাগত বৃদ্ধি পেতে থাকে তাহলে বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ইতিমধ্যে পানি উন্নয়ন বাের্ডের সাথে আলাপ হয়েছে। তারা জানিয়েছে বাঁধ এলাকা পরিদর্শন করে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বাের্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শাহানেওয়াজ তালুকদার বলেন, বর্তমানে কুশিয়ারার পানি বিপদসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com