প্রকৃতির কোলে শ্রীমঙ্গলের নান্দনিক বালিশিরা রিসোর্ট

রবিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১:৪৬ অপরাহ্ণ | 127

প্রকৃতির কোলে শ্রীমঙ্গলের নান্দনিক বালিশিরা রিসোর্ট

পাহাড়, বন ও চা বাগান এলাকার কাছাকাছি সম্মানিত অতিথিদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে বালিশিরা রিসোর্ট লিমিটেড। রিসোর্টটির প্রতিষ্ঠাতারা ট্রাভেল বাংলাদেশের পাঠকদের জন্যে প্রকৃতির খুব কাছের রিসোর্টটির সম্পর্কে লিখেছেন। তাদের মতে, আমরা কয়েকজন সহকর্মী ও বন্ধু শ্রীমঙ্গলের রাধানগরে গ্র্যান্ড সুলতানের খুব কাছেই প্রকৃতি বান্ধব বালিশিরা রিসোর্টটির কাজ শুরু করি।

বালিশিরা রিসোর্টটি এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যাতে পর্যটকরা বন, পাহাড় ও প্রাকৃতিক প্রবাহের (শিরা) সৌন্দর্য অনুভব করতে পারেন। অতিথিরা তাঁদের কটেজ থেকে প্রকৃতি এবং বৃষ্টি উপভোগ করতে পারবেন।



শিশুদের খেলার মাঠ, লং টেনিস, ব্যাডমিন্টন, সুইমিং পুল, টেবিল টেনিস, ওপেন এয়ার মিউজিক, হল রুম, ব্যক্তিগত সুইমিং পুল, রেস্টুরেন্ট ইত্যাদি ভ্রমণ প্রেমীদের আনন্দিত করবে। কটেজ এবং স্যুইটগুলো পাহাড়ের ঢালে মুখোমুখি-ভাবে ছড়িয়ে আছে।

গত তিন বছর ধরে নির্মাণাধীন রিসোর্টে আমি তেমন কোন অবদানই রাখতে পারিনি তবে, রিসোর্টের প্রাথমিক পর্যায়ে নির্মিত ১১টি কটেজের নামকরণের ক্ষেত্রে আমার একটু অবদান রয়েছে। বিভিন্ন উপন্যাস বা কাব্যগ্রন্থের নামে কটেজের নামকরণ করেছি যেমন- মাধুকরী, অরণ্যের দিনরাত্রি, ঝরাপালক, নীলকণ্ঠ পাখির খোঁজে, শেষের কবিতা, অগ্নিবীণা, এইসব দিনরাত্রি, লাল-নীল দীপাবলি, সোনালী কাবিন, কালবেলা, গায়ত্রী সন্ধ্যা ইত্যাদি। ধামরাইয়ের মৃৎশিল্পী গোবিন্দ পাল উপন্যাস বা কাব্যগ্রন্থের নামে টেরাকোটার ডিজাইন করেছেন।

বালিশিরা রিসোর্ট।
বালিশিরা রিসোর্ট। ছবি : সংগৃহীত
বিভিন্ন কটেজের মান অনুযায়ী ভাড়া ৩,০০০ থেকে শুরু করে ৯,৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। যেসব ডুপ্লেক্স কটেজে নিজস্ব সুইমিংপুল রয়েছে সেখানে স্বাভাবিকভাবে ভাড়া একটু বেশি । নিয়মিত ভাড়ার পাশাপাশি কর্পোরেট অফারও রয়েছে। ওয়ার্কিং দিনগুলো (রবিবার থেকে বুধবার) ভাড়া কম থাকবে : ছুটির দিনগুলোতে (বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার ) ভাড়া সে তুলনায় একটু বেশি থাকবে।

সবুজ গাছপালা, প্রাকৃতিক প্রবাহ ও লতাপাতা দিয়ে ঘেরা প্রতিটি কটেজ প্রিয় কবি, লেখক ও কথা সাহিত্যিকের প্রিয় বই গুলোর প্রচ্ছদ অনুযায়ী নামকরণ করা। টেরাকোটার ডিজাইনের নিচে থাকবে সে লেখক, কবি অথবা কথা সাহিত্যিক পরিচিতি এবং তাঁদের উল্লেখযোগ্য বই এর সংগ্রহশালা। ‘শেষের কবিতা’ কটেজে রয়েছে বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কিছু উল্লেখযোগ্য বই। ‘এইসব দিনরাত্রি’ কটেজে আছে প্রিয় কথা সাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদের বই, ‘মাধুকরী’-তে থাকবে বুদ্ধদেব গুহের উল্লেখযোগ্য বই ইত্যাদি।

বালিশিরা রিসোর্ট।
বালিশিরা রিসোর্ট। ছবি : সংগৃহীত
তাছাড়াও কেন্দ্রীয়ভাবে শিশু কিশোরদের বই এবং অন্যান্য উল্লেখযোগ্য বই এর সংগ্রহশালা থাকবে- যা অবসরে অতিথিদের নির্মল সময় কাটাতে সাহায্য করবে এবং সমৃদ্ধ হবে সাহিত্য জ্ঞানে আমাদের প্রযুক্তিনির্ভর প্রজন্ম।

রিসোর্ট বুকিং এবং তথ্যের জন্য সার্বক্ষণিক যোগাযোগ : ০১৭৬৬৫৫৭৭৬০

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com