কুলাউড়া এসোসিয়েশন অব নিউজার্সির বনভোজন ও ঈদ পুনর্মিলনী সম্পন্ন

বৃহস্পতিবার, ২৯ আগস্ট ২০১৯ | ৯:১৪ অপরাহ্ণ | 44

কুলাউড়া এসোসিয়েশন অব নিউজার্সির বনভোজন ও ঈদ পুনর্মিলনী সম্পন্ন

আনন্দঘন পরিবেশ ও দিনব্যাপী নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল যুক্তরাষ্ট্রে বসবারত প্রবাসী বাংলাদেশিদের বৃহৎ সংগঠন কুলাউড়া এসোসিয়েশন অব নিউজার্সির বনভোজন ও ঈদপুনর্মিলনী এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক প্রবাসী পরিবারের অংশগ্রহণে এই আয়োজনে বাংলাদেশিদের মধ্যে মিলন মেলায় পরিণত হয়।

গতকাল নিউজার্সির প্যাটারসন সংলগ্ন গ্যারেট মাউন্টেইন হীলে নিউজার্সিস্থ কুলাউড়াবাসীর বার্ষিক বনভোজন ও ঈদ পুনর্মিলনী ২০১৯ আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পন্ন হয়েছে। বনভোজনে প্রায় চার শতাধিক প্রবাসীর অংশ গ্রহনে সকাল ১১টায় বনভোজনেরর শুভ উউদ্ভোধন করেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা সৈয়দ জুবায়ের আলী,প্যাটারসন সিটির কাউন্সিলম্যান শাহিন খালিক, সংগঠনের সভাপতি রাজা মিয়া তালুকদার,সাধারন সম্পাদক গোলাম মোদাব্বির চৌধুরী সুলেমান, এময় আরো উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার ডিষ্ট্রিক্ট এসোসিয়েশন অব নিউজার্সির সভাপতি সেলিম চৌধুরী,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনহার মিয়াসহ এসোসিয়েশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ।

শুরুতেই সকালের নাস্তা শেষে শুরু হয় দিনব্যাপি চলে খেলাধুলা,মধ্যখানে বিরতি দিয়ে মধ্যাহ্নভোজ শেষে খেলাধুলার মধ্যে ছিল মহিলাদের মিউজিক্যাল পিলো বালিশ খেলা,মিউজিক্যাল চেয়ার, হাড়ী ভাঙ্গা, ছেলে-মেয়েদের ১০০মিঃ ও ৫০মিঃ দৌড়,বড়দের ছিল, বলিবল, ফুটবল, দড়ি টানাটানি ও ২০০ মিটার দৌড়,এছাড়াও এসোসিয়েশনের প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলামের সঠিক তত্বাবধানে কুলাউড়ার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি নিয়ে অংশগ্রহনকারীদের জন্য উম্মুক্ত কুইজ-কুইজ প্রতিযোগিতা। পরে তিন বিজয়ীর হাতে তুলে দেয়া হয় পুরস্কার। উৎসবমূখর পরিবেশে বনভোজনে অংশগ্রহণকারীরা আনন্দময় মুহুর্ত উপভোগ করেন। এদিকে বনভোজন ও ঈদ পুনর্মিলনীতে যুক্তরাষ্ট্রস্থ কুলাউড়াবাসী ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্বগণ তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্যাটারসন সিটির কাউন্সিলম্যান শাহীন খালিক,সাবেক কাউন্সিলম্যান মোঃ আখতারুজ্জামান, কমিশনার সামরান,কমিশনার ইমরান হোসেন, প্রসপেক্ট পার্ক সিটির বোর্ড অব একেডুশনের কমিশনার আবুল হোসেন সুরমান, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ আনহার মিয়া,শামিম আহমদ, সুজন আহমদ সাজু, রুহেল আহমদ, ওয়েস চৌধুরী, মুনিম খালিক, হীমেল চৌধুরী, শাহীন মোহাম্মদ প্রমূখ।

পুরস্কার বিতরণীর পূর্বে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয় কুলাউড়া এসোসিয়েশনের নব নির্বাচিত কার্যকরী পরিষদের কর্মকর্তাদের,এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা সৈয়দ জুবায়ের আলী কার্যকরী কমিটির সকলকে পরিচয় করিয়ে দিতে নেতৃবৃন্দদের নাম ডেকে মঞ্চে আহবান জানালে তাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করেন উপদেষ্টা সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা চৌধুরী নিপন, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, আব্দুল আউয়াল শিপার, আনোয়ার চৌধুরী পারেক, ফখরুল ইসলাম তালুকদার, গোলাম ইস্পাহানী চৌধুরী মাছুম, ওয়েছ চৌধুরী, সৈয়দ খালিদ আলী প্রমুখ। ফুল দিয়ে বরন করা হয় বনভোজন আয়োজক ও কার্যনির্বাহী কমিটির নব নির্বাচিত সভাপতি রাজা মিয়া তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোদাব্বির চৌধুরী সুলেমান, সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ খায়রুল ইসলাম, সহ সভাপতি আব্দুল লতিফ খান, যুগ্ম সম্পাদক আতিকুর রহমান শাহিন, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল অদুদ, কোষাধ্যক্ষ আতিকুর রহমান আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক তারেক চৌধুরী, প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম,ক্রীড়া সম্পাদক সাইফ চৌধুরী, সমাজকল্যান সম্পাদক শাহ মিজান, সাহিত্য সম্পাদক শিহাব, সাংস্কৃতিক সম্পাদক হিরন মিয়া, দপ্তর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, সদস্য সৈয়দ খুবায়েব আলী, সৈয়দ ইমন ইসলাম, বুরহান উদ্দিন, ময়নুল চৌধুরী শাহান, আশরাফুল ইসলাম পাবেল, শাহ নুরুল ইসলাম, নিপন মিয়া, শামিম আহমদ, অভিষেক শেষে শুরু হয় পুরস্কার বিতরণীর মধ্যে খেলাধুলায় ১ম, ২য়, তয় স্থান অর্জনকারীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।

খেলাধুলার পুরস্কার দাতা ছিলেন প্যাটারসন সিটির কাউন্সিলম্যান শাহিন খালিক, সর্বশেষে অনুষ্টিত হয় র‌্যাফেল ড্র, র‌্যাফেল ড্রতে ছিল ১১টি পুরস্কার, ১ম প্রাইজ ছিল ৫০” স্মাট টিভি দাতা ছিলেন ফয়সাল মোস্তফা, বিজয়ী হয়েছেন লিপন মোঃ মিয়া, ২য় পাইজ ছিল কানে স্বর্ণের দুল দাতা ছিলেন গোলাম ইস্পাহানী মাছুম, বিজয়ী হয়েছেন কফিল উদ্দিন, ৩য় পুরষ্কার ছিল ল্যাপটপ দাতা ছিলেন আলমগির কবির শামিম, বিজয়ি হয়েছেন শামিম আহমদ, চতুর্থ পুরষ্কার ল্যাপটপ দাতা ছিলেন নয়াবাজার সুপার মার্কেট বিজয়ী হয়েছেন, সাজিদা আলী, ৫ম প্রাইজ ছিল বাই সাইকেল দাতা ছিলেন আল-মদিনা গ্রোসারী,বিজয়ী হয়েছেন তারেক চৌধুরী,৬ষ্ট প্রাইজ ছিল মাইক্রো ওভেন দাতা ছিলেন ফখরুল ইসলাম তালুকদার বিজয়ী হয়েছেন সৈয়দ খালিদ আলী, ৭ম প্রাইজ ছিল টেবলেট দাতা ছিলেন আনোয়ার চৌধুরী পারেক বিজয়ী হয়েছেন জাকের, ৮ম, ৯ম, ১০ম প্রাইজ ছিল তিনটি আয়রন বিজয়ী হয়েছেন, নিশাত,মুনিম, রাজিয়া, ১১তম প্রাইজ ছিল টেবিল ফ্যান দাতা ছিলেন জালাল মিয়া বিজয়ী হয়েছেন ফাহিম।

উল্লেখ্য, বৃহৎ সংগঠনের এই বনভোজন ও ঈদপূণর্মিলনী অনুষ্টান সফলভাবে সম্পন্ন করায় সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন এসোসিয়েশনের সভাপতি রাজা মিয়া তালুকদার ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোদাব্বির চৌধুরী। তাঁরা বলেন প্রতিবছরের ন্যায় আগামীতে আরো বৃহৎ আকারে এরকম আয়োজন করা হবে। এতে প্রবাসী সকলের পরামর্শ ও সহযোগিতা চেয়েছেন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com