বড়লেখায় পল্লী বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাও, চেয়ারম্যান সোয়েবের কঠোর হুশিয়ারি

সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯ | ১:৪৯ অপরাহ্ণ | 1099

বড়লেখায় পল্লী বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাও, চেয়ারম্যান সোয়েবের কঠোর হুশিয়ারি

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় ঘন ঘন লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে পল্লী বিদ্যুত কার্যালয় ঘেরাও করে তালা দিয়েছেন বিক্ষুব্ধ গ্রাহকরা। রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

গ্রাহকরা জানান, জরুরি মেরামত এবং উন্নয়নমূলক কাজের জন্য গত শনিবার থেকে ৬ দিন পর্যন্ত মৌলভীবাজার বড়লেখা উপজেলায় প্রতিদিন সকাল ৭টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ না থাকার ঘোষণা দেয় পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের কয়েক ঘন্টা পরও বিদ্যুৎ সরবরাহ না কারায় প্রচণ্ড গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েন গ্রাহকরা। এতে তারা ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেন। এ কারণে রোববার রাত ৮টায় তাঁরা পল্লী বিদ্যুৎ কার্যালয় ঘেরাও করে ফটকে তালা দেন।
খবর পেয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে তিনিও গ্রাহকদের সাথে একাত্মতা পোষণ করেন। পরে বিদ্যুৎ চলে আসলে তিনি গ্রাহকদের বুঝিয়ে পল্লী বিদ্যুত কার্যালয়ের তালা খুলে দেন। বিক্ষুব্ধ গ্রাহকদের শান্ত করতে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ কে কঠোর হুশিয়ারি জানিয়ে বলেন, অকারণে এভাবে যদি বিদ্যুৎ সরবাহ বন্ধ থাকে তাহলে বড়লেখার মানুষ কে নিয়ে রাস্তায় নেমে আন্দোলন করার প্রতয় ব্যক্ত করেন।

এ বিষয়ে জানতে পল্লী বিদ্যুতের আঞ্চলিক কার্যলয়ের উপ-মহাব্যস্থাপক (ডিজিএম) সুজিত কুমার বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তিনি ফোন ধরেননি।

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়াছিনুল হক বলেন, ‘এমনিতে প্রচন্ড গরমে মানুষ অতিষ্ঠ। এর মাঝে লম্বা সময় ধরে বিদ্যুৎ নেই। রাতে বিক্ষুব্ধ জনতা পল্লী বিদ্যুতের সাব স্টেশন ঘেরাও করেন। খবর পেয়ে পুলিশ নিয়ে সেখানে যাই। তাদের শান্ত করে- খবর পাই পল্লী বিদ্যুত কার্যালয়ে তালা দেওয়া হয়েছে। সেখানে ছুটে গিয়ে লোকজনকে শান্ত করার চেষ্টা করি। এর মাঝে বিদ্যুৎ চলে আসে। পরে তালা খুলে কার্যালয়ের কর্মচারীর হাতে দেই।’

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com