আপডেট

x


মৌলভীবাজারে প্রথম দিনের লকডাউনে কঠোর প্রশাসন

বৃহস্পতিবার, ০১ জুলাই ২০২১ | ১০:৫৩ অপরাহ্ণ | 143

মৌলভীবাজারে প্রথম দিনের লকডাউনে কঠোর প্রশাসন

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:: করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে মৌলভীবাজার চলছে লকডাউনের প্রথম দিন। লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে রয়েছে জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকরা।

বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) ভোর থেকে লকডাউন বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বসানো হয়েছে পুলিশের চেকপোস্ট। অতি জরুরি প্রয়োজনে রাস্তায় এসে যানবাহন না পেয়ে বিপাকেও পড়েছেন অনেকে। হেঁটে গন্তব্যে যেতে দেখা গেছে অনেককে।



সকালে কুসুমবাগ পয়েন্ট, চৌমুহনা পয়েন্ট, রাস্তার মোড়সহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশের চেকপোস্ট দেখা যায়। রোগী ও জরুরী পরিবহন ছাড়া অন্য যেকোনো পরিবহনকে ফিরিয়ে দিতে দেখা যায় পুলিশকে।

মৌলভীবাজার সদর উপজেলার রায়হান আহমেদ বলেন, লকডাউনের জন্য সব কাজ আটকে আছে। অনেক কষ্টে ম্যানেজ করে শহরে এসেছি । শহরে শুধু রিকশা চলছে। তাই রিকশায় অধিক ভাড়া দিয়ে যাচ্ছি।

কুসুমবাগ এলাকায় জুতা সেলাই করেন অর্জুন দাস। তিনি বলেন, লকডাউনে সব থেকে ক্ষতি হচ্ছে আমাদের। জানি আজকে মানুষ আসবে না তারপরও দোকান খুলে বসে আছি। দেখি কিছু কাজ করতে পারি কিনা। গতকাল এক টাকাও রুজি হয় নাই। সারাদিন বৃষ্টির কারণে মানুষ ঘুরতে বের হয় নাই।

রিকশা চালক জালাল মিয়া বলেন, রিকশা না চালালে খাবো কি। সকল ৭টা থেকে ৫০ টাকা রুজি হয়েছে। রিকশা ভাড়া সকালে দিয়ে এসেছি ৬০ টাকা। মানুষ নেই বললেই চলে। যারা শুধু শহরের মানুষ দেখা যাচ্ছে। অন্যদিন এই সময়ের মধ্যে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা রুজি হতো। এই টাকায় ঘর চলে না। ঘর ভাড়া আছে ১ হাজার টাকা নিজের পকেট খরচ আছে। ​দেখি আরো কিছু সময় থাকবো। তারপর বাসায় চলে যাবো।

মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের রোভার স্কাউটর টিম লিডার ইলিয়াস উদ্দিন বলেন, জেলা প্রশাসকের নির্দেশে আমরা মাঠে কাজ করছি। সকাল ৯টা থেকে আমরা মাঠে কাজ করছি। মানুষকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করতে অনুরোধ করছি। তার প্রয়োজন বোঝার চেষ্টা করছি যদি বেশি প্রয়োজন হয় তাকে সুযোগ দিচ্ছি। যদি সঠিক কারণ দেখাতে না পারে তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দিচ্ছি। আমাদের কাজ হচ্ছে প্রশাসনকে সাহায্য করা। যারা মাঠে কাজ করছে তাদের সহযোগিতা করা।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক  মীর নাহিদ আহসান বলেন,  জেলায় পুলিশ, ম্যাজিস্ট্রেট, সেনাবাহিনী, র‌্যাব, বিজিবি ও আনসারসহ ১৪টি টিম মাঠে কাজ করছে। আমি নিজেও আছি মাঠে। ২১ দফা নির্দেশনা অনুযায়ী সকল কিছু বন্ধ রেখেছি। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে এবং সকল বিধিনিষেধ কার্যকর করার চলমান আছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com