আপডেট

x


কুলাউড়ার ‘ভোলানাথ দাড়া’ রাস্তায় লাগেনি এ-গ্রেড পৌরসভার উন্নয়নের ছোঁয়া!

শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০ | ৩:২৮ অপরাহ্ণ | 561

কুলাউড়ার ‘ভোলানাথ দাড়া’ রাস্তায় লাগেনি এ-গ্রেড পৌরসভার উন্নয়নের ছোঁয়া!

কুলাউড়া পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের জয়পাশা গ্রামের ‘ভোলানাথের দাড়া’ দীর্ঘদিন সংস্কার কাজ না করায় সামান্য বৃষ্টিতে রাস্তার উপর হাঁটু পানি! পুরো রাস্তায় কাঁদায় সয়লাভ। বর্ষা মৌসুমে রাস্তাটির আশপাশের মানুষের করুন অবস্থা দেখার কেউ আছে বলে মনে হয়না। রাস্তাটি দেখলে যে কেউ মনে করতে পারে অজপাড়া গাঁয়ের কোনো রাস্তা এটি। অতচ ‘এ-গ্রেড পৌরসভা’র উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি! বাস্তব চিত্র সামান্য বৃষ্টি হলেই পায়ে হেঁটে চলার অনুপযোগী হয়ে পড়ে।

রাস্তাটির পাশের গার্ডওয়াল ভেঙ্গে ছড়া’র পানি থৈ থৈ করে। এছাড়াও বৃষ্টির ফোটা পড়া মাত্রই কাঁদা পানিতে একাকার হয়ে যায়। দীর্ঘদিন রাস্তাটির কাজ না হওয়ায় মাটি ভেঙ্গে অনেকটা ফসলি জমির সাথে সমান হয়ে গেছে। এর ফলে একদিকে রাস্তা কাঁদায় সয়লাভ, অন্যদিকে খাল–বিলের ময়লা-আবর্জনা মিশ্রিত দূষিত পানি বাড়িতে ঢুকে পড়ায় ডায়রিয়া, কলেরা, টাইফয়েডসহ পানিবাহিত নানা রোগ ছড়ানোর আশংকা করছেন এলাকাবাসীরা।



এ বিষয়ে স্থানীয়রা জানান, ২০১২ সালে রাস্তাটির সংস্কার কাজ হয়। এর পর আর কোন কাজ হয়নি। দুর্ভোগ থেকে মুক্তির আশায় বছরের পর বছর ভোগান্তীর স্বীকার এসব লোকেরা বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে জানালেও রাস্তার কোনো উন্নয়ন হয়নি। রাস্তা সংস্কার হওয়ার আগে ভোলানাথের ‘দাড়া’র উপর একটি ব্রীজ নির্মাণ করা হয়। সেটিও এখন মাটি ভেঙ্গে অনেক টা দূর্বল হয়ে পড়েগেছে। যেকোন সময় দূর্ঘটনার সম্ভাবনা রয়েছে। উন্নয়নের কোনো পদক্ষেপ না থাকায় নিয়মিত ভোগান্তীতে পড়ছেন এলাকাবাসী। ভোলানাথে বসবাস করে স্থানীয়রা ক্ষেত ও কৃষি কাজ করে। কিন্তু রাস্তায় কাঁদার কারণে বৃষ্টির পরে পায়ে হেঁটে বাড়ি থেকে বের হতে পারেন না অনেকে।

কুলাউড়া পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর জহিরুল ইসলাম খাঁন (খসরু) জানান, ভোলানাথের দাড়া নামক পরিচিত রাস্তাটি একটি খাল ছিল। ক্ষেতকৃষি যারা করেন এইরাস্তার উপর দিয়ে চলাচল করতে হয়। এখানে প্রায় ৭০/৮০টি পরিবার বসবাস করে। অতচ রাস্তাটি মেরামতে কারো নজর নেই? মানুষের ভোগান্তীর কথা চিন্তা করে আমি কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ার পর দুই দফায় মাটি ভরাট করে প্রায় ১৬ লাখ টাকার কাজ হয়। পরবর্তিতে আর কোন ধরনের কাজ না হওয়ায় বর্তমানে কাঁদায় পরিপূর্ণ থাকায় চলাচল করা যায়না। অল্প বৃষ্টিতে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। এতে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন স্থানীয়রা। জনগনের অসুবিধা বিবেচনা করে রাস্তাটি উন্নয়নে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবী করেন তিনি।

কুলাউড়া পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিল রাসেল আহমদ চৌধুরী বলেন, রাস্তাটি সংস্কার করার জন্য পৌর মেয়র সাহেব কে অবহিত করেছি। কিন্তু অনেক ব্যয়বহুল থাকার কারণে সম্ভব হয়নি। তবে মাটি ভরাট করে কিছু আংশিক কাজ করানো হয়েছে। পাহাড়ি ঢলের কারণে স্থায়ীত্ব পায়নি। গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে রাস্তাটির উপর হাটু পানি জমাট হয়ে কাঁদার সৃষ্টি হয়। মেয়র সাহেবের সাথে আলাপ হয়েছে। মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com