আমরা কি সত্যিই আধুনিক

মঙ্গলবার, ২৫ আগস্ট ২০২০ | ৯:৫১ অপরাহ্ণ | 90

আমরা কি সত্যিই আধুনিক

আজকাল আমরা যুগের সাথে তাল মিলিয়ে অনেক বেশি আধুনিক হতে চাই। প্রত্যেকেই নিজের জায়গা থেকে আধুনিক হতে চেষ্টা করি। আমরা মোটামুটি চাই যে, আমাদের কাছে উন্নত ডিভাইসগুলো থাক, শহুরে পরিবেশে টিপটপ গোছানো একটা জীবন গতি থাক, অনেকেই একসাথে থাকার চেয়ে নিজের মত করে নিজের একটা জায়গা থাক, কথায়-চালচলনে আধুনিকতার ছাপ থাক। পোশাকাদিতেও কিন্তু আধুনিকতার ছোঁয়া কম যায় না, টিভি সিনেমা পাশ্চাত্য সংস্কৃতিকে অনুসরণ করে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন থাক, একটু ব্যাকডেটেড হয়ে গেলে তাল মিলিয়ে চলা যাবে না, কেউ পছন্দ করতে চাইবে না, তাই জোর করে হলেও নিজেকে পরিবর্তন করার মন মানসিকতা থাক।

এই সব কিছুই আমরা আজকাল উপরে উপরে দেখি। যা দেখি সব আপেক্ষিক। আসলে মনের দিক থেকে আমরা হয়তো এখনো আধুনিকতার ধারের কাছেও যেতে পারিনি।



আচ্ছা বলুনতো শুধু উন্নত ডিভাইস থাকলেই কি আধুনিক হওয়া যায়? সেই ডিভাইস দিয়ে যদি প্রিয়জনদের খবরটুকুই না সময় মত নিলাম তাহলে কি লাভ হল? অথচ আজ থেকে কয়েক বছর আগে যখন এত উন্নত প্রযুক্তি ছিল না তখন কিন্তু ঠিকই মানুষ কষ্ট করে সময় নিয়ে চিঠি আদান প্রদান করত।
তাহলে আমরা কি এখন সত্যিই আধুনিক?

যৌথ পরিবার তো এখন প্রায় দেখাই যায় না। একতা কাকে বলে আমরা এখনকার সময়ে এসে হয়তো অনেকটাই বুঝিনা। দাদা-দাদী, নানা-নানী এদের আদর ভালোবাসা থেকে আমরা অনেকটাই দূরে। তাই বড়দের জন্য সম্মানবোধ যে কত তীব্র তার গভীরতা আমরা বুঝিনা। আর যে একক পরিবারগুলো শহরে রয়েছে তার মধ্যে দেখা যায় অধিকাংশ সময় বাবা-মা দুজনেই কাজের মধ্যে ব্যস্ত। তাই বাবা মা এর সাথে সন্তানদের তেমন একতা নেই। এর ফলে বাবা-মা কে শেষ বয়সে গিয়ে বৃদ্ধাশ্রমে গিয়ে আশ্রয় পেতে হচ্ছে। সকলের মন মানসিকতা কেমন যেন রোবট টাইপ হয়ে যাচ্ছে। এগুলোই কি আধুনিকতার পরিচয়?

আচ্ছা বলুনতো, সুন্দর করে শাড়ি পরে, খোঁপা বা বেনী করে, হালকা কাজল টিপ দিয়ে পরিপাটি হয়ে আধুনিক হওয়া যায় না? সালোয়ার কামিজ, বোরখা, হিজাব পরে আধুনিক সমাজে চলা যায় না? আধুনিক হতে গেলে কেন জিন্স টপস পরে হাইফাই সাজগোছ করে বোঝাতে হবে আমি আধুনিক। আধুনিকতার পরিচয় কি নিজের মত করে পরিপাটি হতে পারেনা?

আচ্ছা আর একটা কথা, সাধারণ করে থেকে কি আধুনিক হওয়া যায় না? আজকালকার আধুনিক যুগে তো সাধারণদের কদর কেউ করতেই জানে না, উপরের চাকচিক্যতেই সকলে মুগ্ধ হয়ে যায়, গভীরতা কেউ বুঝতে চায় না। আর আবেগ ভালোবাসা তো সেই কবেই হারিয়ে গেছে। শুধু শব্দগুলোই আমাদের মধ্যে রয়ে গেছে। ভালোবাসা বা আবেগ বোঝার মত কোন অনুভূতি আমাদের মধ্যে নেই।

এত কিছুর মাঝে আমরা নিজেদের বিবেক এর কাছেও কখনও অনুতপ্ত হই না। আমরা আমাদের স্রষ্টাকে অব্ধি স্মরণ করতে ভুলে যাই সময় এর অযুহাত দেখিয়ে। হয়ে যাচ্ছি শুধু আত্মকেন্দ্রিক।

এগুলোই কি তবে আধুনিকতা? যদি এমন টাই হয় তবে এই আধুনিকতা না থাকাই ভাল। যেখানে সকলের মধ্যে একতা থাকবে, সাধারণের মধ্যে অসাধারণ কিছু থাকবে, সম্মান ভালোবাসা শ্রদ্ধায় ভরা একটি দেশ থাকবে, সকলের বিবেক থাকবে, আত্মসম্মান থাকবে, স্রস্টার কথা স্মরণ থাকবে, ঠিক তখন আমরা নিজেদেরকে আধুনিক বলে দাবী করতে পারি। তার আগে এখনকার সময় এর এই আধুনিকতার কোন মূল্য নেই।

  • সায়মা আশরাফী। শিক্ষার্থী, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

Development by: webnewsdesign.com